আমনিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ইসলামটুল গ্রামে স্থানান্তরের দাবিতে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত

শহিদুল ইসলাম, সিলেট প্রতিনিধি:

কথায় আছে শিক্ষা নাকি জাতির মেরুদণ্ড সেখানে ৫৪ বছর পেরিয়ে গেলেও ইসলামটুল গ্রামে আজও প্রতিষ্ঠিত হয়নি কোন ধরনের সরকারি বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান তারই ধারাবাহিকতায় গত ২৯ ডিসেম্বর ২০২৩ শুক্রবার, সিলেট গোলাপগঞ্জ উপজেলার স্থানীয় আমনিয়া বাজারে আমনিয়া ১নং সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ইসলামটুল গ্রামে স্থানান্তরের দাবিতে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

উক্ত মানববন্ধনে সভাপতিত্ব করেন ফয়জুর রহমান, পরিচালনায় ছিলেন তাজিদুর রহমান। প্রধান অতিথি ছিলেন ৯ নং পশ্চিম আমুড়া ইউনিয়নের সম্মানিত চেয়ারম্যান সৈয়দ হাছিন আহমদ মিন্টু, বিশেষ অতিথি ছিলেন সিলেট জেলা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এমএ ওয়াদুদ এমরুল, সাবেক চেয়ারম্যান মতিউর রহমান তুহিন, যুবলীগ নেতা কাওসার আহমেদ, রুহেল আহমদ প্রমুখ।

বক্তৃতারা বলেন ইসলামটুল গ্রামে কোন বিদ্যালয় নেই। শিক্ষার্থীরা প্রায় দেড় কিলোমিটার দূরে ১নং আমনিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পড়া লেখা করে আসছে। ১নং সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছাত্র/ছাত্রীর মধ্যে ৯৭% ইসলামটুল গ্রামের শিক্ষার্থী তাই ছাত্র/ছাত্রী অবিভাবক এলাকার সর্বস্তরের মানুষের দাবি বিদ্যালয়টি ইসলামটুল গ্রামে স্থানান্তর করা হউক।

এদিকে পাশ্ববর্তী গ্রামে ১০০গজের বিতরে ২ টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও ২টি বেসরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় আছে যাহা বাংলাদেশের আর কোথাও নেই বলে এলাকাবাসীর দাবি স্বাধীনতার ৫৪ বছর পর ও কোন স্কুল স্থাপিত হয়নি। ডিজিটাল স্মার্ট বাংলাদেশ গড়তে শিক্ষিত জাতির দরকার। বক্তৃতাগণ দাবি করেন পৃথিবীর যে কোন বিচারে বিদ্যালয়টি স্থানান্তরের পক্ষে রায় দিবে।

‘শিক্ষা জাতির মেরুদন্ড। কোনো জাতিকে মেরুদন্ড সোজা করে দাঁড়াতে হলে, তাকে শিক্ষা-দীক্ষায় উন্নত হতে হবে। সঠিক বা সত্যিকার শিক্ষা না-থাকলে প্রজন্মের পর প্রজন্ম ‘অশিক্ষিত’ হয়ে পড়লে জাতি কোনো দিনই মাথা সোজা করে দাঁড়াতে পারে না।’

বিদ্যালয়ে জন্য বৃত্তবান গ্রামবাসী ৩৩ শতক জমি বরাদ্দ দিয়েছেন ইসলামটুল গ্রামে একটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় স্থাপনের

জন্য এলাকার কোমলমতি ছাত্র/ছাত্রী ও অভিভাবকেরা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে আকুল আবেদন জানিয়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: